কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন


আজ সোমবার ( ২২ মার্চ ) কক্সবাজারেয উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আগুন লেগেছে। আটটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড ঘটেছে। এখন পর্যন্ত জানা গিয়েছে যে, ৫ জন রোহিঙ্গা এই আগুনে পুড়ে মারা গিয়েছে। আজ বিকেল সাড়ে ৩টায় উখিয়ায় ৯নং রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। এরপর তা একে একে বাকি আটটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পেও ছড়িয়ে পড়ে। এই আগুনে প্রায় তিন হাজার ঘরবাড়ি পুড়ে গিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে মৃতের সংখ্যা ও ঘরবাড়ি পুড়ে যাবার সংখ্যা কোনো নিশ্চিত নয়। সাত ঘন্টার অধিক সময় চেষ্টা করার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় ফায়ার সার্ভিস। আজ সোমবার রাত সাড়ে ১০টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে বলে জানা গিয়েছে। 


রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কাজ করা এক এনজিও অফিসার মোহাম্মদ তাহফিম বলেছেন, ” বিকেল চারটায় ৯ নং‌ ক্যাম্প থেকে হঠাৎ করে ধোয়া আসতে দেখা যায়। তবে আমরা বুঝে উঠার আগেই তা দ্রুত বাতাসের বেগে আট নম্বর ক্যাম্প থেকে শুরু করে ছড়িয়ে পড়ে বাকি ক্যাম্পগুলোতেও। খবর পেয়ে দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের কয়েকটি ইউনিট চলে আসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ‌তবে তাদের আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রায় রাত সাড়ে ১০টা বেজে গিয়েছে।‌ প্রায় ৭ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আসতে সক্ষম হয়।”


তিনি আরো বলেন, আগুনের ভয়াবহতা যখন বাড়া শুরু করে তখন রোহিঙ্গারা এদিক ওদিক ছোটাছুটি করতে থাকেন। তাদের প্রয়োজনীয় কাপড ও প্রয়োজনীয় পণ্য নিয়ে তাদের বাসা থেকে বেরিয়ে আসেন।”


এক রোহিঙ্গা বলেছেন, ” আল্লাহ তায়ালা আমাদের বারবার পরীক্ষার মুখে ফেলছেন। আমরা বারবার পরীক্ষার সম্মুখীন হচ্ছি। মিয়ানমার থেকে আমাদের বের করে দেয়া হলো।‌ এখন এই বাংলাদেশে অগ্নিকাণ্ড। আমরা চরম আতঙ্কের ভেতর রয়েছি।”


আরেক রোহিঙ্গা বলেছেন, ” গ্যাস সিলিন্ডার থেকেই মূলত আগুন লেগেছে। গ্যাস সিলিন্ডার বিষ্ফোরণ হবার পর এই আগুন নিয়ন্ত্রণের বাহিরে চলে যায়। আর আমরা ৫ জনের মৃতদেহ দেখেছি। যা বোঝা যাচ্ছে তা হলো হয়তো ৫ জন মারা গিয়েছে। সাংবাদিক ভাইয়েরাও ছবি তুলেছেন।”


আরেক রোহিঙ্গা মহিলা বলেছেন, ” আজকের এই আগুন আমাদের মায়ানমারের কথা মনে করিয়ে দিয়েছে। আজকের এই দিনের সাথে মিয়ানমারের সহিংসতার কথা মনে করিয়ে দেয়। আল্লাহ দ্রুত আমাদের এই দুর্দিন থেকে দ্রুত হেফাজত করুন।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.