নীরবে দেশে ফিরলেন সাকিব আল হাসান


বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সবচেয়ে জনপ্রিয় ও নির্ভরযোগ্য এক ক্রিকেটারের নাম হচ্ছে সাকিব আল হাসান। এবছর নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ১৫ বছর পূর্ণ করবেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এই ১৫ বছরে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ভরসার এক নাম সাকিব আল হাসান যে শুধু নিজেকেই জনপ্রিয় করেছেন তা কিন্তু নয়। বরং তার সাথে সাথে তিনি বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলকেও অনেক উপরে নিয়ে গিয়েছেন‌। বাহিরের বিভিন্ন বড় বড় লীগগুলোতে বাংলাদেশ থেকে যদি একজন প্রতিনিধি থাকে তাও সেটি হয় সাকিব আল হাসান। তবে এ সাকিব আল হাসানকে নিয়ে তো বিতর্কের শেষ নেই। গতকাল রাতে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান দেশে ফিরলেন কিন্তু কাউকে টের পেতে দেননি।


ওয়েষ্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিণ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের পর পর সাকিব জানিয়েছিলেন যে তিনি নিউজিল্যান্ড জাতীয় ক্রিকেট দলের বিপক্ষে তিণটি ওয়ানডে ও তিণটি টি-টোয়েন্টি সিরিজে স্কোয়াডে থাকবেন। কারণ হিসেবে বলেছেন সে সময় তার সন্তান দুনিয়ার মুখ দেখবে। আর তাই বিসিবি তাকে ছুটি প্রদান করেন। সেই ছুটি এবং এর সাথে কিছু চোট নিয়েই সাকিব আল হাসান চলে যান আমেরিকায়। সেই যাবার পর আজ দেশে ফিরেছেন সাকিব আল হাসান।


এই আমেরিকায় থাকাকালীন কম কিছু হয়ে যায়নি সাকিব আল হাসানের সাথে। প্রথমে সাকিবকে নিয়ে শুরু হলো তিনি আইপিএলে খেলার জন্য এনওসি চেয়েছিলেন। এবং সেই সময়ে থাকা শ্রীলঙ্কা সিরিজ খেলতে না চেয়ে আইপিএল খেলতে চাওয়ায় বিসিবিতে কম কোলাহল হয়নি। এরপর যুক্ত হয়েছে জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টালে লাগবে আসাকে কেন্দ্র করে। সেখানে লাইভে এসে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান বলেছিলেন, আকরাম খান তার চিঠির কথা বুঝতে পারেননি। এছাড়া বাংলাদেশ হাই পারফরম্যান্স ইউনিটকে নিয়েও সমালোচনা করেছিলেন সাকিব আল হাসান। এইসব সমালোচনা কেন্দ্র করে ক্রিকেট পাড়ায় শুধু একটাই আলোচনা তা হচ্ছে সাকিব সাকিব সাকিব।


সাকিব যে আজ দেশে আসছেন তা আগেই জানিয়ে রেখেছিলেন। আর সাংবাদিকরাও ওত পেতে রেখেছিলেন বিমানবন্দরে কখন সাকিব বাংলাদেশে এসে পৌঁছায়। তবে সময় পেরিয়ে গেলেও সাকিবকে না দেখে শঙ্কা জাগলে খোঁজ নিয়ে জানা যায় সাকিব আল হাসান সংবাদকর্মীদের চোখ ফাঁকি দিয়ে এসে পড়েছেন ঢাকায় এবং তিনি তার বাসাতেও পৌঁছে গিয়েছেন।

Leave a Comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.